ব্লগিং করে ইনকাম করার উপায় – How To Make Money Blogging

ব্লগিং করে ইনকাম করা যায় এমন একটা শব্দের সাথে আমরা মোটামুটি সবাই কমবেশি পরিচিত।

কিন্তু ব্লগিং করে ইনকাম করা যায় কিভাবে সেটা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানিনা।

তবে হ্যা আমাদের আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের জানাবে যে ব্লগিং করে ইনকাম করার মাধ্যম গুলো কি এবং কিভাবে।

আগের দিনের মতো আজকের আর্টিকেলটা ও খুবই ইন্টারেস্টিং।

ব্লগিং করে ইনকাম করার ইচ্ছে এবং সবার মধ্যেই রয়েছে তবে অনেকের হয়তো আইডিয়াতে আসেই না যে কিভাবে কি করতে হবে।

আবার অনেকের আইডিয়াতে আসলেও সময়ের সাপেক্ষে কাজ করতে পারে না।

আমাদের আরও একটি আর্টিকেল রয়েছে যেখানে আমরা আলোচনা করেছি ব্লগিং সম্পর্কে।

বেশ কিছু তথ্য শেয়ার করেছি। আপনারা চাইলে আর্টিকেলটি পড়ে আসতে পারেন।

আমাদের আজকের আলোচনার টপিক-

  • কিভাবে ব্লগ লিখবো?
  • কিভাবে লেখাকে SEO এসইও করব?
  • লেখার জন্য পিকচার তৈরি করব?
  • কিওয়ার্ড এবং ট্যাগ কিভাবে তৈরি করব?

অল্প কথায় ব্লগ মানে কি?

ব্লগিং করে ইনকাম

কিভাবে বল কি লিখব এটা জানার আগে ছোট্ট করে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি ব্লগ কি সেটা সম্পর্কে।

সোজা আর সহজ ভাষাতে বললে, ব্লগ আপনার একটা ডায়েরির মতন। এমন একটা ডায়েরি যেখানে আপ্নে আপনার মন মতো যা খুশি লিখতে পারবেন।

আপ্নে, Stories, Tutorials, SMS, শায়েরি, কবিতা, পত্রিকা এবং আর্টিকেল বা যেকোনো জিনিসের বিষয়ে লিখতে পারবেন।

কেবল, এতটুকু খেয়াল রাখবেন যে আপ্নে যা লিখছেন সেটা যাতে সঠিক আর পুরো পরিষ্কার ভাবে লেখা হয়।

ব্লগিং করে ইনকাম করতে চাইলে ব্লক সম্পর্কে আপনার মোটামুটি অনেক বেশি নলেজ অর্জন করতে হবে।

এই সেক্টরের যদি আপনার নলেজ না থাকে সেক্ষেত্রে আপনার সফলতা অনেক বেশী কষ্টকর।

ব্লগিং করে ইনকাম করছে লক্ষ লক্ষ মানুষ তাদের নলেজ রয়েছে অফুরন্ত।

দৈনন্দিন জীবনে তারা তাদের নলেজ খাটিয়ে আমাদের জন্য আর্টিকেল / কনটেন্ট তৈরি করে টাকা উপার্জন করছে।

কিভাবে ব্লগ লিখব

ব্লগিং করে ইনকাম

প্রথমত ব্লগ মানেই হচ্ছে যেহেতু লেখালেখি তাই আপনি যেকোনো জায়গায় লেখালেখি সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

তবে এটি প্রকাশ করার জন্য আপনি নির্দিষ্ট একটি পেইজ অথবা ওয়েবসাইট তৈরি করুন।

অনেক লেখকের আছে যারা ব্লগিং করে ইনকাম করার ইচ্ছেটা নিজের মধ্যে রাখে না শুধুমাত্র নিজের লেখাগুলো প্রকাশ করার জন্য একটা ওয়েবসাইট তৈরি করে থাকেন।

অথবা একটা ফেসবুক পেইজ অথবা বিভিন্ন প্লাটফর্মে নিজের আর্টিকেলগুলো অথবা নিজের লেখাগুলো প্রকাশ করেন।

এখানে যদি আপনার ইচ্ছেটাই এমন হয় যে ব্লগিং করে ইনকাম করব না বরং নিজের লেখা গুলোকে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো তাহলে ঠিক আছে আপনি আপনার জায়গা থেকে সে ধরনের চেষ্টা করতে পারেন।

►► এছাড়াও ইউটিউবিং করে আর্ন করতে পারেন। ইউটিউবে সফল হতে চাইলে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

তবে যাদের ইচ্ছে ব্লগিং করে ইনকাম করার তাদের কাজ এবং ইচ্ছেটা খুবই ভিন্ন এবং ক্রিটিক্যাল। অর্থাৎ অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হবে প্রথম পর্যায়ে।

আপনার লেখাগুলো সুন্দর ভাবে লিখতে হবে, মানসম্মত লেখা হতে হবে, আপনার লেখাগুলো পড়ে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করা যায় এমন ভাবে লিখতে হবে।

লেখাগুলোর মধ্যে শুদ্ধ এবং সাবলীল ভাষা ব্যবহার করতে হবে।

আমরা অনেকেই নিজের মাতৃভাষায় লেখা প্রকাশ করি যা অন্যের জন্য খুব বেশি ক্রিটিক্যাল এবং সমস্যা তৈরি করে।

তাই নিজের লেখাকে সঠিকভাবে প্রকাশ করার জন্য সঠিক মাধ্যমটি বেছে নিন এবং সুন্দরভাবে সাজিয়ে নিন।

কিভাবে লেখাকে SEO করবেন

ব্লগিং করে ইনকাম

SEO – (Search Engine Optimization) এটা আমাদের আর্টিকেলগুলো রেংক করতে অনেক অনেক বেশি সহায়তা করবে। একটা ওয়েবসাইট এবং একটা আর্টিকেল এর জন্য SEO এসইও অনেক বেশি প্রয়োজন।

►► যেহেতু ইতিমধ্যে আমাদের অন্য একটি আর্টিকেল রয়েছে ব্যাকলিংক কি সে সম্পর্কিত সুতরাং সেটি আপনাকে পড়তে হবে। আর্টিকেলটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

এসইও SEO মূলত দুই প্রকার। ১. অনপেজ এসইও। ২. অফ পেজ এসইও। দুটো প্রকার এসইও সম্পর্কে আপনাকে অবগত হতে হবে।

বিশেষ করে অনপেজ এসইও আপনার আর্টিকেলকে গুগোলের টপ পেইজে এনে দিতে অনেক বেশি সহায়তা করবে।

এসইও করার বেসিক নিয়ম-

  • মিনিমাম আর্টিকেল ওয়ার্ড ১০০০-১৫০০ হতে হবে।
  • আর্টিকেল এর মধ্যে হেডিং ব্যবহার করতে হবে।
  • আর্টিকেল এর মধ্যে নিয়ম অনুযায়ী ইমেজ ব্যবহার করতে হবে।
  • ফোকাস কিওয়ার্ড টার্গেট এর থাকতে হবে এবং ব্যবহার করতে হবে।
  • ইন্টারনাল লিংক এবং এক্সটারনাল লিংক ব্যবহার করতে হবে।
  • শুদ্ধ সাবলীল লেখা হতে হবে। (এটা ইউজারদের সুবিধায়)
  • সঠিক পদ্ধতিতে ট্যাগ ব্যবহার করতে হবে।

উপরে যে বিষয়গুলো বলা হয়েছে-সেগুলো একটা আর্টিকেল প্রকাশ করার পূর্বে মাথায় রেখে SEO সম্পূর্ণ করতে হবে। তাই অবশ্যই বিষয়গুলো গুরুত্বসহকারে দেখুন।

কেবলমাত্র এসইও আপনার ওয়েবসাইট এবং আর্টিকেলকে গুগলের প্রথম পেইজে এনে দিতে সহায়তা করতে পারে।

তাই আর্টিকেল লেখার পাশাপাশি আপনার আর্টিকেলটি এসইও ফ্রেন্ডলি কিনা সেদিকে নজর রাখুন।

ব্লগিং করে ইনকাম করতে চাইলে এটি আপনার জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ একটি টপিক।

ইনকাম করার পূর্বে অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হয় যেটা আমরা পূর্বে বলেছিলাম আর সেই পরিশ্রমটা হয়ে থাকে আর্টিকেল লেখা এবং এসইও সম্পন্ন করাতে।

লেখার জন্য পিকচার কোথায় পাবো?

ব্লগিং করে ইনকাম

আপনার লেখার জন্য পিকচার কোথায় পাবেন তা অনেকেই জানেন না। আর হ্যাঁ প্রত্যেকটা লেখার জন্য পর্যাপ্ত পিকচার ব্যবহার করা উচিত।

লেখার মধ্যে পর্যাপ্ত পিকচার ব্যবহার করার ফলে ইউজার আপনার লেখা পড়ে স্বাচ্ছন্দ বোধ করতে পারে এবং লেখার না পড়েও পিকচার এর মাধ্যমে লেখার ভাষা বুঝতে পারে।

পিকচার গুলো পুনরায় এসইও সম্পূর্ণ হতে হবে। এসি সম্পূর্ণ পিকচারগুলো ব্যবহারের ফলে খুব দ্রুত আপনার আর্টিকেল গুগলের প্রথম পেইজে আসতে সহায়তা করবে।

►► লেখার জন্য পিকচার ডাউনলোড করার অনেকগুলো ওয়েবসাইট রয়েছে। আর্টিকেলটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

যেহেতু ওয়েবসাইট গুলোর লিস্ট উপরে দেয়া হয়েছে তাই নতুন করে আর এখানে ওয়েবসাইট গুলোর নাম মেনশন করছি না।

তবে হ্যাঁ, যেহেতু পিকচার গুলো আমার নিজের না তাই অবশ্যই আমাদের উচিত পিকচার গুলো ডাউনলোড করে নিজের মতো করে এডিট করে ব্যবহার করা।

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করেন সেক্ষেত্রে মোবাইলের কয়েকটি সফটওয়্যার রয়েছে যা দিয়ে আপনি সহজে পিকচার এডিট করতে পারেন।

যদি সম্ভব হয় অথবা আপনি ফটোশপ সম্পর্কে ভাল জানেন তাহলে নিজের মতো করে একটা পিকচার তৈরি করে নিলে সবচাইতে ভালো এবং বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

তবে আমাদের আর্টিকেল এর মধ্যে যেই ওয়েবসাইটগুলো মেনশন রয়েছে সেগুলো থেকে আপনি ব্যবহার করতে পারেন আশা করি সমস্যা হবে না।

কিওয়ার্ড এবং ট্যাগ কোথায় পাবো?

ব্লগিং করে ইনকাম

আমরা এসইও সেকশনে ইতিমধ্যে বলে দিয়েছি কিওয়ার্ড হচ্ছে আমাদের টার্গেটেড ফোকাস কিওয়ার্ড। আর এই ফোকাস কিওয়ার্ড হতে হবে আপনার কম্পিটিটর এর চাইতে ভালো।

মানুষ গুগলে সার্চ করে এবং সার্চ করার ফলে পর্যাপ্ত সার্চ রেজাল্ট পায়না এমন কিওয়ার্ড নিয়ে কাজ করতে হবে। এমন কিওয়ার্ড নিয়ে কাজ করতে হবে যার CPC এবং সার্চ বলিয়ম অনেক বেশি ভালো।

►► একটা আর্টিকেল এর জন্য পর্যাপ্ত ট্যাগ আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। ট্যাগ জেনারেট করার জন্য খুবই ভাল একটি টুলস রয়েছে। টুলস পেতে এখানে ক্লিক করুন

আর্টিকেল লেখার পূর্বে আপনাকে দীর্ঘ সময় ধরে কিওয়ার্ড রিসার্চ করা উচিত এতে করে আপনার কিওয়ার্ড কোনভাবে রেংক করলে আপনি গুগল থেকে সর্বোচ্চ ভিজিটর পেতে পারেন।

যারাই ব্লগিং করে ইনকাম করতে চায় তাদের মেইন টার্গেট হচ্ছে অর্গানিক ট্রাফিক গুগল থেকে আসে।

আপনারা জানেন যে, হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ কম্পিউটার আছেন যারা বাংলাতে বলে লিখছেন। সেখানে নতুন হিসেবে আপনার প্রধান মালেক বেশি কম হওয়াই স্বাভাবিক।

তাই কম্পিউটারের সাথে লড়তে আপনাকে কিওয়ার্ড রিসার্চ করে আর্টিকেল লিখতে হবে।

কিওয়ার্ড রিসার্চ করে আর্টিকেল লেখার ফলে আপনার কম্পিউটার থেকে আপনি উপরে আসতে পারবেন এবং পর্যাপ্ত ভিজিটর আর্ন করতে পারবেন।

আমাদের কথা

ব্লগিং করে ইনকাম

ব্লগিং করে ইনকাম করার বেশ কয়েকটি মাধ্যমের মধ্যে সবচাইতে ভালো একটি মাধ্যম হচ্ছে লেখালেখি করা। যারা লেখালেখি করতে পারদর্শী তাদের জন্য ব্লগিং খুবই সহজ।

লেখালেখি করে ইনকাম করে একটা সময়ে এসে আপনার খুবই ভালো লাগবে আপনি খুবই আরাম ফিল করবেন।

একটা সময় মনে হবে যে আমি আমার নিজের ক্যারিয়ার ব্লগিংয়ের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে পারছি।

ব্লগিং করে ইনকাম করতে হলে প্রথম দিকে আপনার একটু কষ্ট ভোগ করতে হবে যদিও পরে আপনি অনেক বেশি শান্তি পাবেন।

►► আর মোবাইল দিয়ে কিভাবে ব্লগিং করবেন সে সম্বন্ধে আমাদের টি আর্টিকেল হয়েছে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

বন্ধুরা তাহলে আমরা আজকে জানলাম ব্লগিং করে ইনকাম করার অনেক গুলো মাধ্যম এবং কীভাবে লেখালিখি করেও ইনকাম করা যায় সে বিষয়ে ইতিমধ্যে বলা হয়েছে।

আর্টিকেলটি আপনার ভাল লাগলে একটি কমেন্ট করুন। চাইলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

Leave a Comment

//whoursie.com/4/6176583