লাইফ ফোকাস পর্ব-৪

লাইফ ফোকাস পর্ব-2

লাইফ ফোকাস পর্ব-2 সময়টি ছিল জানুয়ারী ২০১৩। আমাকে মালয়েশিয়ার টপ বৃত্তি ইয়াইয়াসান খাজানা বৃত্তির ৪ দিন ব্যাপী এসেসমেন্ট সেন্টারের জন্য ডাকা হয়। মালয়েশিয়ার একদম টপ অফ দি টপ ছাত্রী-ছাত্রীদের জন্য হচ্ছে এই বৃত্তি। প্রতিবছর পুরো মালয়েশিয়া জুড়ে ২ লক্ষ প্রার্থী থেকে কেবল মাত্র ১০-১২ জনকে বাছাই করা হয় এই বৃত্তির আওতায়।

আর আমাদের দেশে কয়েক হাজার প্রার্থীর থেকে কঠোর এসেমেন্টের মাধ্যমে কেবল মাত্র ২ জন প্রার্থী বাছাই করা হয় মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য।
আবেদনের জন্য নূন্যতম সিজিপিএ ৩.৫০ পেতে হয় ব্যাচেলর ডিগ্রিতে। আবার IELTS কিংবা ইংরেজির উপর যে কোনো পরীক্ষার স্কোরও থাকতে হয়। পাশাপাশি প্রফেশনাল অভিজ্ঞতার বিষয়টিও দেখা হয়। আমার IELTS স্কোর তখন ছিল ৭ এবং সিজিপিএ ৩.৬০ এর উপরে ছিল।

আমার সময় পুরো বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৩০০০ প্রার্থীর মধ্যে শর্টলিস্ট করে টপ ১০০তে নামিয়ে আনা হয়। তারপর এই ১০০ জনের মধ্যে থেকে চলে ৪ দিন ব্যাপী কঠোর এসেসমেন্ট যা মালয়েশিয়ার অথরিটি কর্তৃক পরিচালনা করা হয় পুরোপুরি মানে দুর্নীতির কোনো সুযোগ নেই। দেশের বহু বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক টপ ছাত্র-ছাত্রী এমনকি ফ্যাকাল্টি মেম্বারদের তীব্র প্রতিযোগিতা করে এই বৃত্তির এসেমেন্টে টিকে থাকতে হয়েছিল।
আর এই ৪ দিন সকাল থেকে সন্ধ্যাব্যাপী নানা রকমের এসেসমেন্ট থাকতো। প্রতিদিনই নকআউট হতো কেউ না কেউ। ৩ দিন পর কেবল আমরা টপ ৪ চারজন ছিলাম যাদের প্রত্যেককে প্রায় ১ ঘন্টা করে ইন্টারভিউ নিয়েছিলেন এই বৃত্তি প্রোগ্রামের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর যিনি কেমব্রিজ বিসনেস স্কুল থেকে এমবিএতে টপ হয়েছিলেন।

তারপর আমাদের চারজনের ফুল প্রোফাইল নিয়ে তারা মালয়েশিয়া চলে যান। পরে প্রায় ৪ মাস পর যা ইয়াইয়াসান খাজানার মিটিংয়ের পর আমাদের টপ ৪ জনের মধ্যে থেকে টপ ২ জনকে এই বৃত্তি দেয়া হয়।
আজ আমি গর্ব করে বলতে পারি যে, আমি মালয়েশিয়ার সবচাইতে টপ বৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করেছি।

ইয়াইয়াসান খাজানা আমাদের এছাড়াও অনেক লিডারশিপ ট্রেনিং দিয়েছে। প্রতি জন ইয়াইয়াসান খাজানা বৃত্তি প্রাপ্তদের জন্য মাস্টার্স লেভেলে পড়াশোনা, মাসিক চলাফেরার খরচ, লিডারশিপ ট্রেনিং, কনফারেন্স গ্রান্টস, ল্যাপটপ গ্রান্টস, বুক গ্রান্ট ছাড়াও সর্বমোট দেড় থেকে দুই কোটি টাকা করে খরচ করেছে। আর সবকিছুর মুলে ছিল আমাদের এশিয়ার মধ্যে টপ লিডার হিসেবে গড়ে তোলা।


আরো পড়ুন: লাইফ ফোকাস পর্ব-১
আরো পড়ুন: paragraph: Plysical Exercise(বাংলা অর্থসহ)
আরো পড়ুন: ১৯৫ টি গুরুত্বপূর্ন MCQ উত্তরসহ
আরো পড়ুন: বিশ্বের ৯টি ঐতিহাসিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম


একজন ইয়াইয়াসান খাজানা স্কলার হিসেবে আমি আসলেই অনেক বেশি গর্বিত। কিন্ত আফসোসের বিষয় হচ্ছে বিগত ২০১৮ সালের পর থেকে বৃত্তিটি আর বাংলাদেশিদের জন্য উন্মুক্ত নেই।

মা-বাবার সেবা-যত্ন করুন। ভালো থাকুন, নিরাপদে থাকুন। আর অন্যায়কে সর্বদা না বলুন। একে অন্যের সাহায্য করুন।
নূর-আল-আহাদ
<Financial Engineer > Eccentric Economist > Futurist>
বিবিএ (ইউনিভার্সিটি অফ ঢাকা) ১৪ তম ব্যাচ
এমবিএ (ইউনিভার্সিটি পুত্রা মালয়েশিয়া)
মাস্টার অফ ইঞ্জিনিয়ারিং (ফিনান্সিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং, জাপান)
ফিনান্সিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং গবেষক (জাপান)
(Acquiring knowledge does not have a full-stop, rather it always has comma – Ahad)

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *