হাতের লেখা সুন্দর করার উপায়

বাংলা হাতের লেখা সুন্দর করার উপায় | Do Good Handwriting

আসসালামু আলাইকুম। লিসোনারির (Lessonery) আরও একটি নতুন আর্টিকেলে আপনাকে স্বাগতম। পরীক্ষায় ভালো নম্বর পাওয়ার পাশাপাশি নিজের স্মার্টনেস ধরে রাখার জন্য হাতের লেখা সুন্দর করার বিকল্প কিছুই নেই। সুন্দর হাতের লেখার কদর সর্বোত্ত, কিন্তু হাতের লেখার পাশাপাশি যদি লেখা গুলো আরো দ্রুত হয় তাহলে তো কথাই নেই।

হাতের লেখা এমন এক জিনিস যা ছোটবেলা থেকেই লেখার সঠিক পদ্ধতি বুঝে নিতে হয়। তা না হলে বড় হয়ে এর পরিবর্তন করা খুবই কঠিন হয়ে পড়ে। তবে আজ আমি আপনাদের সাথে হাতের লেখা সুন্দর করার উপায় সমূহ গুলো শেয়ার করবো।

আমরা জানি যে, হাতের লেখা শুধু অফিস-আদালতে কিংবা বিভিন্ন কাগজপত্র তৈরীর ক্ষেত্রে প্রয়োজন না এছাড়া আরও বিভিন্ন ক্ষেত্র সমূহ রয়েছে যে সকল জায়গাতে হাতের লেখার গুরুত্ব অপরিসীম।

হাতের লেখা যদি ভালো না হয় সে ক্ষেত্রে নিজের মধ্যে অন্যরকম একটা দুর্বলতা প্রতিনিয়ত কাজ করে।

আর আপনার হাতের লেখা যদি অসাধারণ এবং সুন্দর হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আপনার মনের মধ্যে একটা আনন্দ সবসময় কাজ করে এবং যেকোনো পরিবেশে কিংবা যেকোন সিচুয়েশনে লেখার জন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখা সম্ভব।

আরো পড়ুন:  কিভাবে কাউকে ইংরেজিতে পরিচয় করিয়ে দিব ?

►► আরো পড়ুন: কিভাবে কাউকে ইংরেজিতে পরিচয় করিয়ে দিব?
►► আরো পড়ুন: Full Meaning PSC JSC JDC SSC HSC BSC

হাতের লেখা সুন্দর করার উপায় ৬ টি –

  • কলম ধরার সময় কখনও কলম চেপে ধরবেন না।
  • বেশি বেশি বর্ণমালা অনুশীলন করবেন।
  • অঙ্গবিন্যাস ঠিক করে লিখতে বসবেন। 
  • কোন কিছু লেখার সময় অবশ্যই মনোযোগী হবেন। 
  • লেখার মধ্যে নির্দিষ্ট ফাঁকা রাখবেন।
  • নিয়মিত লেখা অনুশীলন করবেন। 

১। কলম ধরার সময় কখনও কলম চেপে ধরবেন না। চেপে ধরলে আপনার লেখার গতি কমে যাওয়ার সাথে সাথে লেখার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যাবে তাই আজ থেকে লেখার সময় কলম সামান্য আলগা করে ধরে রাখার অভ্যাস করুন এতে করে আপনার লেখার ধরন সুন্দর হওয়ার পাশাপাশি আরো দ্রুত হবে।

২। বেশি বেশি বর্ণমালা অনুশীলন করবেন। যদি অক্ষর সুন্দর না হয় যত চেষ্টাই করেন না কেন লেখা বিচ্ছিরি দেখাবে।

তাই প্রত্যেকটি বর্ণ কিভাবে লিখবেন তা প্রথমেই সিলেক্ট করে নিন।

যার হাতের লেখা সুন্দর তার অক্ষর বিন্যাস এর প্রতি খেয়াল করুন।

আরো পড়ুন:  বিখ্যাত আবিষ্কার ও আবিষ্কারকের নাম

যদি দেখে দেখে না পারেন তাহলে ওভার রাইটিং এর মাধ্যমে প্র্যাকটিস করতে পারেন। 

৩। অঙ্গবিন্যাস ঠিক করে লিখতে বসবেন। সোজা হয়ে বসুন এবং আপনার অন্য হাত থেকে কাগজ বা খাতা কে চেপে ধরার জন্য ব্যবহার করুন।

যুক্তরাষ্ট্রের হাতের লেখা বিশেষজ্ঞ “লোরা হোপার (Lora Hooper)” বলেন, লেখার সময় আমি আমার অন্য হাতটিকে সামঞ্জস্য রক্ষার্থে ব্যবহার করি।

এতে আমাকে স্থির থাকতে এবং নিয়ন্ত্রণ বাড়াতে সাহায্য করে। এজন্য আমাদের চেয়ার-টেবিল ব্যবহার করা উত্তম।

৪। কোন কিছু লেখার সময় অবশ্যই মনোযোগী হবেন। মনোযোগী হওয়া প্রত্যেকটি কাজের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তাই প্রথমেই মনে স্থির করুন আপনি কি লিখবেন। তাই লেখার আগে ভাবুন আপনি কি লিখবেন এতে আপনার লেখা নির্ভুল হবে।

আমাদের অন্যান্য আর্টিকেলগুলো পড়ুন:

►► See more: Convert image to text with Google Docs
►► See more:Become a voter online while sitting at home

৫। লেখার মধ্যে নির্দিষ্ট ফাঁকা রাখবেন। আমরা অনেক সময় লিখতে গিয়ে একটি শব্দের সাথে আরেকটি শব্দ এমন ভাবে লিখি যে কোনটা কি তা আলাদা ভাবে বোঝার উপায় থাকেনা।

আরো পড়ুন:  হাসন রাজা এর জীবনী:

এতে লেখা দ্রুত না হয়ে বরং কাটাকাটি করতে গিয়ে লেখার কোয়ালিটি খারাপ করে ফেলি।

তাই লিখতে গিয়ে লেখা যেন একটির সাথে আরেকটি আঠা লেগে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

আর অবশ্যই প্রত্যেকটা ওয়ার্ড এর মাঝে নির্দিষ্ট পরিমাণে স্পেস রাখুন। ওভাররাইটিং থেকে বিরত থাকুন দেখবেন লেখা নিজ থেকেই সুন্দর হচ্ছে।

৬। নিয়মিত লেখা অনুশীলন করবেন। হাতের লেখা ভালো রাখতে এবং ভালো করতে নিয়মিত লেখা কিংবা চর্চার বিকল্প নেই।

নিয়মগুলো মেনে আপনি যত বেশি অনুশীলন করবেন আপনার তত বেশি বাড়বে। 

সর্বশেষঃ উপরে ৬ টি মাধ্যম দেয়া হয়েছে, এগুলো ফলো করে আপনি আপনার হাতের লেখা কে আরও বেশি আকর্ষণীয় এবং সুন্দর করতে পারেন।

তবে এটা সম্পূর্ণ আপনার উপর চেস্টার উপরে নির্ভর করে।

যদিও হাতের লেখার দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হয় ছোটবেলা থেকেই কিন্তু তখন আমাদের বিভিন্ন কারণে হাতের লেখা এত ভালো না হলেও আপনি চাইলে বড় হয়েও এটির চর্চা বাড়িয়ে দিলে আপনার লেখার কোয়ালিটি আরো ভালো হতে পারে।

Check Also

বাংলার পিতা ৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য

৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য

আমরা আজকে জানবো ৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য কতটা! বন্ধুরা তাহলে অপেক্ষা কেন চলুন আমরা জেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.