এই রমজানে শরীরচর্চা

রমজানে শরীরচর্চা – আমাদের সবারই জরুরি এই রমজানে স্বাস্থ্য ঠিক রাখা। আপনি যদি হঠাৎ শরীরচর্চা বন্ধ রাখেন। তাহলে অস্বস্তি লাগাটা একদমই স্বাভাবিক।

রমজান মাসে সারাদিন রোজা রেখে ঘাম ঝরানোটাও বেশ কষ্টের ব্যাপার। তবে ডায়াবেটিস, হার্টের রোগীদের এসময় বেশি বেশি নিয়ম–কানুন মেনে চলা প্রয়োজন এই সময়।

যারা নিয়মিত শরীরচর্চা করে, তারাই বোঝে শরীরচর্চা গুরুত্ব কতখানি।


আরো পড়ুণ: ইফতারে তরমুজের শরবত তৃষ্ণা মেটাবে
আরো পড়ুণ: এই গরমে সুস্থ এবং প্রানবন্তর রাখবে যেসব ফলমূল!

আসুন আমরা টিম লিসোনারির মাধ্যমে আজ জেনে নেই এই রমজানে কিভাবে শরীরচর্চা করা যায়:

আমরা অনেকেই ভাবি রোজা রেখে কোন সময় শরীরচর্চা করবো। সকালে নাকি বিকেলে? তবে অনেক বিশেষজ্ঞরা বলেন, রোজা রেখে সকালে শরীরচর্চা করাই স্বাস্থ্যসম্মত।

সেহরি শেষে একটু বিশ্রাম নিয়ে শরীরচর্চা করা যেতে পারে।

যারা নিয়মিত হাঁটেন:

যারা নিয়মিত হাঁটেন বা হাঁটার অভ্যাস, তারা সকালের দিকেই কিছুক্ষণ হাঁটতে পারেন। রোজা রেখে বিকেলে না হাঁটাই ভালো।

বিশেষ করে ডায়াবেটিসের রোগীরা বিকেলে হাঁটবেন না। কারণ, এই সময় ডায়াবেটিসের রোগীদের রক্তে শর্করার পরিমাণ অনেক বেশি কমে যায়।

যারা কঠোর পরিশ্রম করে তারা অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় শরীরচর্চা করতে পারে না। তারা হাঁটতে পারেন নিয়মিত।

তবে রোজা রেখে হালকা শরীরচর্চা করতে হবে। কঠোরভাবে করতে গেলে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন।

ব্যায়াম করেন যারা:

আরো পড়ুণ: Composition: Tree Plantation/The Importance of Tree Plantation(বাংলা অর্থসহ)
আরো পড়ুণ: paragraph: Plysical Exercise(বাংলা অর্থসহ)

রমজান মাসে আমাদের হালকা ব্যায়াম করাই উচিত। যে ব্যায়ামগুলো করলে আমাদের শরীর থেকে বেশি ঘাম ঝরবে সেগুলো এ সময় না করাই ভালো।

ঐ ধরে ব্যায়াম করলে পানি পিপাসা লাগবে ফলে আপনাদের সারাদিন রোজা রাখতে কষ্ট হবে।

তবে ব্যায়াম করতে হবে ঠান্ডা জায়গায়। ইফতারি করার কমপক্ষে ১ ঘন্টা বা তার থেকে বেশি সময় পর ব্যায়াম করা ভালো এবং অনেকে ইফতারির পর পর জিমে ব্যায়াম করতে আগ্রহী।

ইফতারির কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর ব্যায়াম করা যাবে তবে সামান্য ইফতারি করে তারপর কিছু সময় পর ব্যায়াম করুন।

এছাড়া বেশি ইফতারি না করেও আপনি ব্যায়াম করতে জিমে আসতে পারেন।

আমার মতে আপনাকে অবশ্যই ইফতারির কিছু সময় বিশ্রাম নিয়ে ব্যায়াম করা সবথেকে বেশি ভালো।

কারণ সারাদিন রোজা রাখার পর আপনার শরীর ক্লান্ত হয়ে পরবে। তাছাড়াও আপনি ইফতার করার পর কখনোই জিমে যেতে ইচ্ছা করবে না।

পাশাপাশি নজর দিন আপনার খাদ্যতালিকায়।

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুণ।

Leave a Comment