এই গরমে সুস্থ এবং প্রানবন্তর রাখবে যেসব ফলমূল

এই গরমে সুস্থ এবং প্রানবন্তর রাখবে যেসব ফলমূল!

এই গরমে সুস্থ এবং প্রানবন্তর থাকতে প্রচুর পরিমাণ পানি পান করা প্রয়োজন এবং পাশাপাশি ফল খাওয়া দরকার।

বিশেষ ক্ষেত্রে দেখা যায় গরম সময়ে অনেক খাবারই আমাদের পেটে হজম হয় না।

এতে আমাদের বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভূক্তে হয়। যেমন: পেটে সমস্যা, বমি বমি ভাব, ত্বকে ব্রণ উঠা ইত্যাদি।

তাই আমাদের এই গরমে পেট ঠাণ্ডা রাখা খুবই জরুরি। পেট ঠাণ্ডা থাকলে শরীরের ভেতরও ঠাণ্ডা থাকে।

মনে রাখবেন খাবার হজম না হলে আমাদের শরীর ভালো থাকে না। হজম ভালো হলে বাড়বে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।


আরো পড়ুণ: paragraph: Load-shedding (বাংলা অর্থসহ)
আরো দেখুণ: মানুষ হবো না – সুজন মুন্না


তাহলে টিম লিসোনারির চিকিৎসকদের মধ্যে জেনে নেই কোনো খাবার খেলে বা কোনো ধরণের ফল আমাদের শরীর সুস্থ এবং প্রানবন্তর থাকবে।

সুস্থ এবং প্রানবন্তর রাখবে যেসব ফলমূল

তরমুজ: গরমে আমাদের ক্লান্তি কাটাতে পারে তরমুজে। তরমুজের রস খেলে ত্বকের তারুণ্য ফিরে আসে।

তরমুজে আছে ভিটামিন এ, বি২, বি৬, ই এবং ভিটামিন সি, এছাড়াও পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা ক্যারোটিন, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট লাইকোপেন (যা ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে) ইত্যাদি।

এসব থাকলেও ক্যালোরির মাত্রা থাকে কম। যা আমাদের শরীরে পানির অভাব পূরণ করার পাশাপাশি শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে। এই ফল খেলে টাইফয়েড জ্বরে উপকার পাওয়া যায়।

কলা: কলা এটি গ্রীষ্মকালীন ফল হিসেবে বেশ উপযোগী ফল। খাওয়া যায় কাচা-পাকা দুটোই।

শরীর থেকে অতিরিক্ত ঘামে যে তরল পদার্থ বের হয়ে যায়। তা পটাশিয়াম নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

পটাশিয়াম রয়েছে কলার মধ্যে। তাই গরমে নিয়মিত কলা খান।

শসা: গ্রীষ্মের জনপ্রিয় সবজি হিসেবে খাদ্যতালিকায় শুরুর দিকে রাখতে পারেন এই শসা।

ফসফরাস, জিংক, ক্যালসিয়াম ও অন্য বেশ কয়েকটি খনিজ পদার্থের ভালো উৎস হিসেবে বিবেচিত হয় শসা।

শসা শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে।

ডাবের পানি: প্রাকৃতিক উপাদান সমৃদ্ধ মিনারেলস্, পটাশিয়াম সবকিছু মিলিয়ে উৎকৃষ্ট একটি পানীয় যা শরীরকে ঠান্ডা ও চাঙ্গা করে।

ডাবের পানিতে আছে ল্যারিক অ্যাসিড যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

এছাড়াও ডাবের পানি শরীরের ওজন কমাতে বেশ সহায়তা করে।

বাঙ্গি: ততোটা আকর্ষনীয় ও লোভনীয় না হলেও পুষ্টিগুণের কারণে গ্রীষ্ম মৌসুমে খুব উপকারী ফল বাঙ্গি।

এতে আছে কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন- বি৬, সি, কে, ফোলেট, ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম।

এর শীতলকারক ও মূত্রবর্ধক বৈশিষ্ট্য রয়েছে বলে এটি দেহের পানিশূন্যতা দূর করার পাশাপাশি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে।

আরো দেখুণ: পরিণাম – সুমাইয়া শাহরীন
আরো দেখুণ: নবনীর আগমনে – সুমাইয়া শাহরীন

বেল: বেলের আছে অনেক গুণ। কাঁচা বেল পুড়িয়ে বা সিদ্ধ করে খেলে হজমশক্তি বাড়ে এবং সকালে খালি পেটে খেলে বায়ু ও পেটের অসুখ ভালো হয়।

পেঁপে: পাকা পেঁপে কোষ্ঠ পরিষ্কার করে, বায়ু নাশ করে।

বদহজমের রোগীরা পেঁপে খেলে উপকার পাবে। কাঁচা পেঁপের আঠা বীজ ক্রিমিনাশক ও যকৃতের জন্য ভালো।

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলেও এখানে ক্লিক করুণ।

Leave a Comment