Composition: The Season I Like Best/the Rainy Season In Bangladesh (বাংলা অর্থসহ)

The Season I Like Best/the Rainy Season In Bangladesh

 

Introducation : Bangladesh is the darling and blessed child of nature. Nature decorates her different ways at different times. On this basis, Bangladesh is divided ino six season. The rainy season is one of them. I like the rainy season very much.

Formation : The rainy season consists of two Bangla month, Ashar and Shraban. The main quality of rainy season is rain. This rain caused by monsoon. Monsoon brings plenty of vapour. As s result, in the rainy season it rains heavily.

Description : In the rainy season most of the time the sky remains covered with cloud. In some days the sun is not seen. It rains cats and dogs. Sometimes, the rain continues for a few days. Rivers, canals and ponds becomes full of water.

Merits/Advantages : Bangladesh is an agricultural and rivering country. So, generally the rainy season is a blessing for Bangladesh. Rain water saves our irrigation expense. Besides, rain water makes the soil fertile. As a result we can have/get good harvset. On the other hand we can easily go from one place to another by river ways. The rany days give us much pleasure and entertainment too.

Demerits/Disadvantages : The rainy season has some bad sides too. The roads become muddy and slippery. People can’t go to work. Student can’t go to school. The day labourer and poor people can’t earn. As a result, somethings, they are to starve. Moreover, excessive rainfall causes flood. This flood destroys lots of lives, goods, houses, crops etc.

conclusion : In fine, we can say that though the rainy season has some bad sides it is a grant blessing for us. For this all wait eagerly to welcome the rainy season.


আরো পড়ুণ: Paragraph: A Tea Stall (বাংলা অর্থসহ)

আরো পড়ুণ: যুক্তিতেই মুক্তি – সায়লা শবনম রিচি 


ভূমিকা : বাংলাদেশ প্রকৃতির সুন্দরী ও আর্মীর্বাদপুষ্ট শিশু। প্রকৃতি তাকে সজ্জিত করে বিভিন্নভাবে বিভিন্ন সময়ে। এর ভিত্তিতে বাংলাদেশ বিভক্ত ছয়টি ঋতুতে। বর্ষাকাল তার মধ্যে একটি। আমি পছন্দ করি বর্ষাকালকে খুব বেশি।

গঠন : বর্ষাকালে আছে দুটি দুটি মাস আষাঢ় ও শ্রাবণ। বর্ষাকালের প্রধান গুণ বর্ষা। এই বৃষ্টি সংগঠিত মৌসুমি বায়ুর জন্য। মৌসুমি বায়ু বয়ে আনে প্রচুর জলীয়বাষ্প। ফলে বর্ষাকালে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়।

বর্ণনা : বর্ষাকালে অধিকাংশ সময় আকাশ ঢাকা থাকে মেঘে। কোনো কোনো দিন সূর্য দেখা যায় না। বৃষ্টি হয় মষলধারে। কোনো কোনো সময় বৃষ্টি হতে থাকে কয়েকদিন ধরে। নদীগুলো, খালগুলো, পুকুরগুলো পানিতে পরিপূর্ণ হয়ে যায়।

উপকারিতা/সুবিধাসমূহ : বাংলাদেশ একটি কৃষিপ্রধান ও নদীমাতৃক দেশ। তাই, সাধারণত বর্ষাকাল একটি আশীর্বাদ বাংলাদেশের জন্য। বৃষ্টির পানি বাঁচায় আমাদের সেচের খরচ। অধিকন্তু বৃষ্টির পানি মাটিকে করে উর্বর। ফলে, আমরা পাই ভালো ফসল। পক্ষান্তরে আমরা সহজে যেতে পারি এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নদীপথে। বৃষ্টির পানিগুলো আমাদের দেয় প্রচুর আনন্দ ও বিনোদন।

অপকারিতা/অসুবিধাসমূহ : বর্ষাকালে আছে কিছু খারাপ দিকও। রাস্তাঘাটগুলো হয়ে যায় কর্দমাক্ত ও পিচ্ছিল। লোকজন যেতে পারে না কাজেকর্মে। ছাত্রছাত্রীরা যেতে পারে না বিদ্যালয়ে। দিনমজুরেরা ও গরিব লোকেরা উপার্জন করতে পারে না। ফলে কোনো কোনো সময় তাদেরকে অনাহারে থাকতে হয়। অধিকন্তু অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত ঘটায় বন্যা। এই বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত করে প্রচুর জীবনের, জিনিসপত্রের, ঘরবাড়ির, ফসলের ইত্যাদি।

উপসংহার : পরিশেষে আমরা বলতে পারি যে, যদিও বর্ষাকালের আছে কিছু খারাপ দিক কিন্তু ইহা খুব আশীর্বাদেরও আমাদের জন্য।

 

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলেও এখানে ক্লিক করুণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *